বৃহঃস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২

তেল উৎপাদন শিল্পে বাংলাদেশ থেকে কর্মী নিবে মালয়েশিয়া

শেয়ার করুন

মালয়েশিয়ার অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির সিংহভাগ আসে ভোজ্য তেল বা পাম ওয়েল উৎপাদন ও রপ্তানির মাধ্যমে। কিন্তু গত দুই বছর এ খাতটি শ্রমিক সঙ্কটে পড়ায় এর উৎপাদন ৫ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে। তবে চলতি বছরেই এর উৎপাদন বড়াতে উদ্যোগ নিচ্ছে দেশটি।

একদিকে মালয়েশিয়ার এই ভোজ্য তেলের চাহিদা যেমন ক্রমাগত বৃদ্ধি পাচ্ছে অপর দিতে শ্রমিক সঙ্ককটও প্রকট। খাতটির শ্রমিক সঙ্কট পূরণ করতে বাংলাদেশ, ভারত এবং ইন্দোনেশিয়া থেকে কয়েক হাজার কর্মী নিয়োগ দেয়া হবে বলে জানা গেছে।

এ তিনদেশ থেকে ৩২ হাজারেরও বেশি কর্মী নিয়োগের মাধ্যমে শ্রমিক ঘাটতি পূরণ করে আরও বেশি ভোজ্য তেল বিদেশের বাজারে সরবরাহ করতে চায় মালয়েশিয়া।

সোমবার (২১ ফেব্রুয়ারি) বার্তা সংস্থা বারনামা’র এক সাক্ষাৎকারে প্ল্যান্টেশন ইন্ডাস্ট্রি ও কমোডিটি মন্ত্রী দাতুক জুরাইদা কামারউদ্দিন এসব তথ্য দিয়ে বলেন, নিয়োগকারীদের কাছ থেকে পাওয়া আবেদনগুলি প্রক্রিয়া করা হচ্ছে। দেশটির কৃষি জাত পণ্যের রপ্তানি বাড়াতে চার দিনের সফরে রোববার ভারতে গেছেন মন্ত্রী ।

সোমবার ভারতের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ভি. মুরালিধরনের সাথে তার আলোচনায় জুরাইদা কামারউদ্দিন বলেন, মালয়েশিয়ায় বৃক্ষরোপণ শিল্পে বিদেশি শ্রমিকদের চাহিদা বেড়েছে। বৃক্ষরোপণ খাতে শ্রম সরবরাহের জন্য দীর্ঘমেয়াদী ব্যবস্থা গ্রহণ করার বিষয়েও তাদের মধ্যে আলোচনা হয়। এ বিষয়ে দুই দেশের মধ্যে একটি সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) স্বাক্ষরের বিষয়ে তারা আলোচনা করেছেন বলেও জানান মন্ত্রী জুরাইদা কামারউদ্দিন। এছাড়াও মালয়েশিয়া বিদেশী কর্মীর উপর নির্ভরতা কমাতে প্ল্যান্টেশন শিল্পে যান্ত্রিকীকরণের কাজ করছে।

শেয়ার করুন »

লেখক সম্পর্কে »

মন্তব্য করুন »

Translate »