বৃহঃস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২

ময়মনসিংহে চাঞ্চল্যকর অপহৃত স্কুল ছাত্রী উদ্ধার

শেয়ার করুন

জন্মদিনের কেক ও মিষ্টিরসাথে চেতনানাশক মিশিয়ে খাইয়ে দশম শ্রেনীর ছাত্রীকে অপহরণকারী আজাহারুল ইসলাম(২২)কে গ্রেফতার ও অপহৃত মৌরী(১৬) ছব্দনামকে উদ্ধার করেছে পিবিআই ময়মনসিংহ।
মৌরী (ছব্দনাম) ময়মনসিংহের ত্রিশালের ধলা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেনীর ছাত্রী। অপহরণকারী আজাহারুল ইসলাম একই গ্রাম অথাৎ ধলা গ্রামের বাসীন্দা নবী হোসেনের ছেলে।

দায়েরকৃত মামলা ও পিবিআই সুত্রে জানা যায় মৌরী স্কুলে যাওয়া আসার পথে ভখাটে আজাহারুল ইসলাম প্রতিনিয়তই তাকে প্রেম প্রস্তাবসহ ইভটিজিং করত। মৌরী তার প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় গত ২৪/০৩/২০২২ ইং তারিখে মামলার ৩নং আসামী জেমি খাতুনের জন্মদিন উপলক্ষে আনা কেক ও মিষ্টির সাথে চেতনানাশক মিশিয়ে মৌরীর পরিবারের লোকজনকে খাইয়ে মৌরীকে অপহরণ করে বখাটে আজাহারুল ইসলাম ও তার সহযোগীরা।

পরে ময়মনসিংহ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতে অপহৃতার মা বাদী হয়ে একটি মামলা করেন।

আদালত পিবিআই ময়মনসিংহকে মামলাটি তদন্ত করতে নির্দেশ প্রদান করেন। পিবি আই ময়মনসিংহের পুলিশ সুপার গৌতম কুমার বিশ^াসের সার্বক্ষনিক তদারকি ও দিক নির্দেশনায় মামলাটির তদন্ত করেন পিবি আই উপ-পুলিশ পরিদর্শক রফিকুল ইসলাম।

বিরামহীণ চেষ্টা ও তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় দায়িত্ব লাভের ৭দিনের মধ্যে অপহৃত ছাত্রীকে মঙ্গলবার নগরির ঢাকা বাইপাস এলাকা থেকে উদ্ধারসহ অপহরণকার কেও গ্রেফতার করেছে পিবি আই।
তবে মঙ্গলবার দুপুরে গ্রেফতারে পর উদ্ধারকৃত ভিকটিম মৌরী (১৬)কে ময়মনসিংহের বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে পেরণ করা হলে সে স্বেচ্ছায় তার দেয়া ২২ ধারায় জবানবন্দিতে আদালতকে জানান তাকে আপহরণ করা হয়নি। গত ৩ বছরধরে আজহারুল ইসলামের সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক । পরিবারের লোকজন তাদের সম্পর্কর্ মেনে না নেয়ায় তারা গত ২৪/০৩/২০২২ ইং তারিখে পালিয়ে গিয়ে উভয়ের সম্মতিতে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন তারা। গত এক মাসের অধিক সময়ধরে গাজীপুরের কোনাবাড়ীতে বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করছেন বলে আদালতকে জানান মৌরী (ছদ্বনাম)

শেয়ার করুন »

লেখক সম্পর্কে »

মন্তব্য করুন »

Translate »