শুক্রবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২৩

ভারতের বিপক্ষে জয় কাজে দেবে বিশ্বকাপে

শেয়ার করুন

এশিয়া কাপে টানা তিন পরাজয়ে মানসিকভাবে বেশ অস্বস্তিতে ছিল বাংলাদেশ দল। নিজেদের শেষ ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে জয় পাওয়ায় সেই ক্ষত কিছুটা সেরেছে। বিশ্বকাপের আগে যা উজ্জ্বীবিত করেছে টাইগার ক্রিকেটারদের। শেষ মুহূর্তের জয়ের আনন্দ নিয়ে ইতোমধ্যে দেশে ফিরেছেন চন্ডিকা হাথুরুসিংহের শিষ্যরা। এরপর মেহেদী মিরাজের ভাষ্য, ভারতের বিপক্ষে জয় কাজে দেবে বিশ্বকাপে।

দেশে ফিরেই আজ (শনিবার) বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মিরাজ জানান ভারতকে হারানোর গুরুত্ব সম্পর্কে, ‘শেষ ম্যাচটা জেতায় দলের মধ্যে আলাদা আত্মবিশ্বাস যোগ করবে। ভারত এই টুর্নামেন্টে খুব ভালো খেলছে।’

আসন্ন নিউজিল্যান্ড সিরিজ ও বিশ্বকাপে এই জয় কাজে লাগবে বলে আত্মবিশ্বাস মিরাজের, ‘ম্যাচটা এমন ছিল…আমরা জিতলেও এশিয়া কাপের ফাইনালে যাওয়ার কোনো সুযোগ ছিল না। তবে আমাদের মধ্যে এই বিষয়টা কাজ করেছে, যদি ভারতের সঙ্গে জিততে পারি, তাহলে বিশ্বকাপের যাওয়ার আগে আত্মবিশ্বাসটা ভালো থাকবে। বিশ্বকাপ বড় ইভেন্ট, খেলাও ভারতে। সেখানে যাওয়ার আগে দলের স্পিরিটটা বেড়ে যাবে। সেটাই হয়েছে। দলের খেলোয়াড়েরা খুব ভালো খেলেছে।’

পুরো টুর্নামেন্টে বাংলাদেশের প্রাপ্তি নিয়ে মিরাজ বলছেন, ‘অবশ্যই দুটি জয়। আফগানিস্তান ও ভারতের বিপক্ষে। যেভাবে ক্রিকেট খেলেছে, তরুণেরা যেভাবে খেলেছে, যেমন সাকিব অভিষেকে ভালো করেছে, হৃদয় সাকিব ভাইয়ের সঙ্গে ভালো জুটি করেছে। এই ম্যাচে লোয়ার অর্ডার থেকেও রান এসেছে। এটা আমাদের দলের জন্য অনেক ইতিবাচক দিক।’

তবে চোট–আঘাতের সমস্যা না থাকলে ফলাফলটা আরও ভালো হতে পারত দাবি মিরাজের ‘আমরা চেষ্টা করব যারা চোটে পড়েছে, তারা যেন দ্রুত সুস্থ হয়ে ওঠে। তামিম ভাই দলের সঙ্গে ছিলেন না চোটের কারণে। শান্ত খেলার ভেতর চোটে পড়েছে। সে কিন্তু দুটি ম্যাচ খেলেছে, দুটিতেই বড় ইনিংস খেলেছে। লিটন ভাই অসুস্থ ছিলেন। মুশফিক ভাইকে ব্যক্তিগত কারণে খেলার মাঝেই চলে আসতে হয়েছে। সব মিলিয়ে যদি সবাই সুস্থ থাকত, তাহলে খুব ভালো একটা টুর্নামেন্ট হতো, আমি ব্যক্তিগতভাবে এ আশাই করেছি। সব মিলিয়ে মনে করি, বিশ্বকাপের আগে আমরা সবাই সুস্থ হয়ে, মানসিকভাবে ভালো অবস্থায় থেকে বিশ্বকাপে যেতে চাই।’

এশিয়া কাপে ভারতের বিপক্ষে এর আগে বাংলাদেশের সর্বশেষ জিতেছিল ২০১২ আসরে। আরেকটি জয় পেতে তাদের ১১ বছর অপেক্ষা করতে হয়েছে। এশিয়া কাপে সব ফরম্যাট মিলিয়ে ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের দেখা হয়েছিল ১৫ বার। যেখানে বাংলাদেশ দ্বিতীয় জয় পেয়েছে গতকাল।

শেয়ার করুন »

লেখক সম্পর্কে »

মন্তব্য করুন »

Translate »