দুবাইয়ে গালফ ফুড ফেয়ারে প্রাণের পণ্য


বাংলাদেশের কণ্ঠ ডেস্ক প্রকাশের সময় : ফেব্রুয়ারী ২১, ২০২৩, ১২:১০ অপরাহ্ন /
দুবাইয়ে গালফ ফুড ফেয়ারে প্রাণের পণ্য

আজকালের কন্ঠ ডেস্ক : আফ্রিকা, মধ্যপ্রাচ্য ও ইউরোপের দেশগুলোতে কৃষি প্রক্রিয়াজাত পণ্যের রপ্তানি বাড়াতে কাজ করছে দেশের শীর্ষস্থানীয় খাদ্যপণ্য উৎপাদন ও বিপণনকারী প্রতিষ্ঠান প্রাণ। এ লক্ষ্যে সংযুক্ত আরব আমিরাতে বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ খাদ্যপণ্যের মেলা গালফ ফুড ফেয়ারে অংশ নিয়েছে দেশীয় খাদ্যপণ্যের এ প্রতিষ্ঠান।

গতকাল এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, আরব আমিরাতের দুবাই ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে সোমবার শুরু হওয়া পাঁচ দিনব্যাপী এ মেলায় পাঁচ শতাধিক পণ্য প্রদর্শন করছে প্রাণ গ্রুপ। প্রতিবছর এ মেলায় বিশ্বের বিভিন্ন জায়গা থেকে খাদ্য ও বেভারেজ পণ্য উৎপাদন ও বিপণনকারী প্রতিষ্ঠানগুলো অংশ নেয়। এবারের মেলায় ১২০টির বেশি দেশ থেকে পাঁচ হাজারের বেশি প্রতিষ্ঠান তাদের পণ্য ও সেবা প্রদর্শন করছে।

প্রাণ এক্সপোর্টের নির্বাহী পরিচালক মিজানুর রহমান বলেন, প্রাণ গ্রুপ ২০১৩ সাল থেকে গালফ ফেয়ারে নিয়মিত অংশ নিচ্ছে। প্রতিবছর বিভিন্ন দেশের প্রায় ৪০০ আমদানিকারক প্রাণের স্টল পরিদর্শন করেন। প্রাণ এবার জুস ও বেভারেজ, বিস্কুট ও বেকারি, স্ন্যাকস, কনফেকশনারি, স্পাইস ও কালিনারি, কনফেকশনারি ও ফ্রোজেন ফুডস ক্যাটাগরিতে প্রায় ৫০০ পণ্য প্রদর্শন করছে।

মিজানুর রহমান জানান, এবারের মেলায় বাসিল (তোকমা দানা) ড্রিংকস, ড্রিংকো ফ্লট, লিচি ড্রিংক, ম্যাংগো জুস, বিভিন্ন ধরনের স্পাইস, ক্রিম বিস্কুট, ওয়েফার, চকলেট, ললিপপ, নুডলস ও ফ্রোজেন ফুডসের ওপর বেশি গুরুত্ব দিয়ে তুলে ধরছে প্রাণ।

প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের বিপণন পরিচালক কামরুজ্জামান কামাল বলেন, প্রাণ মেলায় আফ্রিকা, মধ্যপ্রাচ্য, আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর বাজার চাহিদাকে গুরুত্ব দিয়ে পণ্য প্রদর্শন করছে। ২০২৩ সালে প্রাণের লক্ষ্য ৪০ কোটি ডলারের পণ্য রপ্তানি করা। এ লক্ষ্যে নিজেদের নতুন পণ্য নিয়ে ও বিদ্যমান পণ্যের রপ্তানি বাড়াতে প্রাণ গালফ ফুড ফেয়ারে অংশ নিচ্ছে।