শীতে যে ৪ খাবার বাদ দেবেন না


বাংলাদেশের কণ্ঠ ডেস্ক প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ৩১, ২০২৩, ৯:৪০ অপরাহ্ন /
শীতে যে ৪ খাবার বাদ দেবেন না

শীতকাল কে না ভালোবাসে? শীতল কম্পন, আরামদায়ক সোয়েটার এবং সুস্বাদু খাবার। হৃদয়কে উষ্ণ করে তুলতে এগুলো অনন্য। কিন্তু তাপমাত্রা কমে গেলে আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। ভয় পাবেন না, শীতের মাসগুলোতে নিজেকে সমৃদ্ধ রাখতে কিছু খাবার খেলেই চলবে। এগুলো শুধু খাবার নয়; শীতকালীন সুপারহিরো। পুষ্টি এবং উপকারিতা দিয়ে ভরা এসব খাবার আপনার শরীর সুস্থ রাখতে কাজ করে। চলুন জেনে নেওয়া যাক সেরা ৪টি প্রয়োজনীয় শীতকালীন খাবার সম্পর্কে যা আপনাকে শুধু উষ্ণই রাখবে না বরং স্বাস্থ্যও ভালো রাখবে।

১. মিষ্টি আলু
মিষ্টি আলুর মিষ্টি স্বাদ নিন। আয়রন, ফোলেট, কপার, ম্যাগনেসিয়াম এবং ভিটামিন সি সমৃদ্ধ মিষ্টি আলু শুধুমাত্র একটি সুস্বাদু সাইড ডিশ নয়, এর রয়েছে অসংখ্য উপকারিতা। উজ্জ্বল চুল, ত্বক এবং চোখের জন্য মিষ্টি আলু হতে পারে উৎকৃষ্ট সমাধান। শীতের সমস্যা দূর করতে মিষ্টি আলু খাওয়া বাদ দেবেন না।

২. শালগম
শালগমের শক্তিকে অবমূল্যায়ন করবেন না! এই সবজি সবাই খেতে পছন্দ নাও করতে পারে, তবে এটি শীতকালীন গেম-চেঞ্জার। ভিটামিন সি এবং কে দ্বারা পরিপূর্ণ শালগম শুধুমাত্র আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় না বরং আয়রনের ঘাটতিও মোকাবিলা করে। এই পুষ্টিকর সবজিকে সঙ্গী করে শীতের অসুস্থতাকে বিদায় জানান।

৩. আমন্ড
আমন্ড শুধু নাস্তা হিসেবেই নয়; এটি আপনার শীতকালীন সুপারফুড হিসেবেও কাজ করে। মস্তিস্কের ক্ষমতা বৃদ্ধিকারী পুষ্টিতে ভরপুর, এই বাদাম আপনার মন এবং শরীরের জন্য একটি প্রয়োজনীয় খাবার। ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড, ভিটামিন ই এবং জিঙ্কের পাওয়ার হাউজ হিসেবেও কাজ করে এটি। এর সঙ্গে আখরোট, চিয়া বীজ এবং ফ্ল্যাক্সসিড মিশিয়ে খেতে পারেন। শীতে সুস্থতা নিশ্চিত হবে অনেকটাই।

৪. মাছ
সমস্ত আমিষভোজীদের জন্য মাছ হলো শীতকালীন সবচেয়ে ভালো খাবারের একটি। ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিডের পূর্ণ এই খাবার আপনার প্রতিদিনের তালিকায় যুক্ত করে নিন। সংক্রমণ এড়ানোর জন্য এটি আপনাকে নিয়মিত খেতে হবে। ক্যালসিয়াম, ফসফরাস, ভিটামিন, খনিজ এবং কপারে ভরা মাছ খাওয়ার অভ্যাস করুন। স্বাদ আর পুষ্টি একসঙ্গে পাবেন।