জনসাধারণকে রমজানে খাবারের অপচয় না করার আহ্বান সৌদি আরবের


বাংলাদেশের কণ্ঠ ডেস্ক প্রকাশের সময় : মার্চ ১৪, ২০২৪, ৭:২০ অপরাহ্ন /
জনসাধারণকে রমজানে খাবারের অপচয় না করার আহ্বান সৌদি আরবের

রমজান মাস শুধু সংযম আর আত্মশুদ্ধির মাসই নয়, এটি মন ও শরীরকে সতেজও করে তুলতে পারে। টানা একমাস রোজার এই সময়টাতে সারা বিশ্বের মুসলমানরা সেহরি থেকে ইফতার পর্যন্ত না খেয়ে থাকেন। আর তাই এই মাসে খাবার অপচয়ের মতো অভ্যাস গড়ে ওঠার আশঙ্কাও থাকে।

আর বিশ্বে খাবার অপচয় বা নষ্ট করার দিক দিয়ে শীর্ষ অবস্থানে রয়েছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সৌদি আরব। এর কারণে চলমান রমজান মাসে জনসাধারণকে খাবারের অপচয় এড়ানোর আহ্বান জানিয়েছে সৌদি কর্তৃপক্ষ।

বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম আরব নিউজ।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশে নষ্ট হওয়া মাংসের পরিমাণ কমাতে পবিত্র রমজান মাসে যখন লোকেরা ইফতার করেন তখন তাদের ‘যৌক্তিক আচরণ’ করার আহ্বান জানিয়েছে সৌদি আরবের কর্তৃপক্ষ।

মধ্যপ্রাচ্যের এই দেশটির পরিবেশ, পানি ও কৃষি মন্ত্রণালয় বলেছে, রমজান মাসে প্রচুর পরিমাণে মাংস আবর্জনার স্তূপে ছুড়ে ফেলা হয় এবং শেষ পর্যন্ত সেই বর্জ্য কৃষিখাতের জন্য চ্যালেঞ্জ তৈরি করে।

গবেষণায় দেখা গেছে, সৌদি আরবের একজন ব্যক্তি গড়ে প্রতি বছর ১৮৪ কেজির বেশি খাবার অপচয় করে, যার পরিমাণ দেশব্যাপী প্রায় ৪০ লাখ টন। অপচয়কৃত খাবারের বার্ষিক মূল্যমান ৪০ বিলিয়নের বেশি সৌদি রিয়াল বা ১০.৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এর অন্যতম প্রধান কারণ খাদ্য অপচয় সম্পর্কে জনসচেতনতা কমে যাওয়া।

মন্ত্রণালয়ের পরিসংখ্যানে দেখা যাচ্ছে, সৌদি আরবে প্রতি বছর ৪ লাখ ৪৪ হাজার টন মুরগির মাংস, ২২ হাজার টন ভেড়ার মাংস, ১৩ হাজার টন উটের মাংস, ৬৯ হাজার টন মাছ এবং ৪১ হাজার টন অন্যান্য ধরনের মাংস নষ্ট হয়।