শিল্পীদের গার্মেন্টসে চাকরি দেবেন হেলেনা, ক্ষুব্ধ সোহানা সাবা


বাংলাদেশের কণ্ঠ ডেস্ক প্রকাশের সময় : এপ্রিল ৮, ২০২৪, ৮:২৭ অপরাহ্ন /
শিল্পীদের গার্মেন্টসে চাকরি দেবেন হেলেনা, ক্ষুব্ধ সোহানা সাবা

আসন্ন চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২০২৪–২৬ মেয়াদের নির্বাচনে চিত্রনায়িকা নিপুণের প্যানেলে কার্যনির্বাহী সদস্য পদে নির্বাচন করছেন আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কৃত নেত্রী হেলেনা জাহাঙ্গীর।

নির্বাচনে দাঁড়িয়ে তিনি বলেন, ‘আমার গার্মেন্টস ইন্ডাস্ট্রি আছে। এ অঙ্গনের যাদের চাকরি লাগবে তাদের আমি চাকরি দিতে পারব। এজন্য কলি-নিপুণ পরিষদে যে, অফার ছিল তা লুফে নিয়েছি।’

হেলেনার এই বক্তব্যে ভালোভাবে নেননি চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টরা। বিশেষ করে ‘শিল্পীদের গার্মেন্টসে চাকরি দেয়া হবে’ এমন মন্তব্যে চলচ্চিত্রাঙ্গণে সমালোচনার সৃষ্টি করেছে। বিষয়টি নিয়ে এবার কথা বলেছেন অভিনেত্রী সোহানা সাবা।

হেলেনা জাহাঙ্গীরের নাম না উল্লেখ করলেও তাকে উদ্দেশ্য করেই এক দীর্ঘ স্ট্যাটাস দিয়েছেন তিনি। যেখানে সোহানা সাবা লিখেছেন ভীষণ বিরক্ত লাগছে! একটা কথা বলতে বাধ্য হচ্ছি—আজকাল যদিও অনেক অসংলগ্ন জিনিসপত্র আশেপাশে দেখেও আর অবাক হই না! বিরক্ত হই না এবং ফেসবুকে এসব নিয়ে তো লেখালেখি করিই না! স্পেশালি কোভিডের আগে বা কোভিড সমসাময়িক সময়ে, আমাদের আর্টিস্টদের কিছু প্রতিনিধি বারবার একটা শব্দ প্রচলিত করেছিল—‘দুস্থ শিল্পী’। আমি তখন প্রতিবাদ করেছিলাম এই শব্দের!

প্রশ্ন রেখে সাবা বলেন, একজন শিল্পী কি করে দুস্থ হয়? হতেই পারে আর্থিকভাবে সে অসচ্ছল। কিন্তু তার শৈল্পিক সত্তাকে এখানে সবার সামনে চোখে আঙ্গুল দিয়ে তার আর্থিক অবস্থার কারণে সাধারণ মানুষের কাছে বা সবার কাছে ছোট করে দেখানোর কি আছে? সেই ভয়ংকর সময়টা কেটে গেছে। কিন্তু গত দুদিন ধরে একজন মহিলা, আমি তাকে খুব ভালো করে চিনি না। শুধু জানি তিনি অনেক অসংলগ্ন কথাবার্তা সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করে সবসময় আলোচনায় থাকতে চায় এবং কিছুদিন আগে তার গ্রেপ্তার হওয়ার ঘটনায় তিনি সবচেয়ে বেশি আলোচনায় এসেছিলেন। সে মহিলাটা আর্টিস্টদের নির্বাচনকে ঘিরে বলে বেড়াচ্ছেন যে আর্টিস্টদেরকে গার্মেন্টসে চাকরি দিবেন। প্রথমদিকে এই ‘কোড’ চারপাশে ঘুরে বেড়াচ্ছে দেখে ভাবছিলাম এটা সত্যি হতে পারে না। কিন্তু অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি যে এ ধরনের কথা তিনি বলে বেড়াচ্ছেন।

হেলেনা জাহাঙ্গীরের কথায় অসম্মানবোধ করছেন জানিয়ে এই অভিনেত্রী বলেন, গার্মেন্টসে আমাদের যেসব শ্রমজীবী ভাই ও বোনেরা কাজ করেন তাদেরকে আমি কোন ভাবেই ছোট করে বলছি না। তাদেরকে আমি সম্মান করি। তাদের কারণেই আমাদের পুরো দেশের আর্থিক মেরুদণ্ড শক্ত হয়ে দাঁড়িয়ে আছে। কিন্তু এভাবে ফলাও করে একজন শিল্পীকে গার্মেন্টসে চাকরি দেয়ার লোভ দেখিয়ে, সে যে ধরনের ভোট ব্যাংকের কথা বলছে সেটা আমি একজন আর্টিস্ট হিসাবে অসম্ভব অসম্মানিত বোধ করছি!

অভিযোগ উঠেছে গঠনতন্ত্রের নিয়ম না মেনেই ইলিয়াস কাঞ্চন ও নিপুণের নেতৃত্বাধীন কমিটি শিল্পী সমিতির সদস্য করেছেন প্রতারণা ও চাঁদাবাজির অভিযোগে জেল ফেরত বহিষ্কৃত হেলেনা জাহাঙ্গীরকে।